মেটলাইফ ডিপিএস ভাঙ্গার নিয়ম

আপনারা যারা মেটলাইফ ইন্সুইরেন্স কোম্পানিতে ডিপিএস (DPS) করছেন তাদের মধ্যে অনেকে জানতে চাচ্ছেন মেটলাইফ ডিপিএস ভাঙ্গার নিয়ম বা বাতিল করা নিয়ম সম্পর্কে।

মেটলাইফ ইন্সুইরেন্স বাংলাদেশ দেশের সর্ববৃহৎ জীবন বীমা প্রতিষ্ঠান। মেটলাইফ বাংলাদেশের ১০ লাখের ও বেশি গ্রাহককে সেবা প্রদান করার পাশাপাশি ১৬ হাজারের উপর মাঠ পর্যায়ে কর্মকর্তা- কর্মচারী নিয়ে মেটলাইফ কাজ করছে।

আমাদের মধ্যে অনেকে মেটলাইফ ডিপিএস (Metlife DPS) করার পর ব্যাক্তিগত বা বিভিন্ন সমস্যার কারণে ডিপিএস ভাঙ্গার নিয়ম জানতে চাচ্ছেন। Metlife DPS ভাঙ্গার বা বাতিল করার নিয়ম জানতে সম্পূর্ণ লেখাটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

মেটলাইফ ডিপিএস ভাঙ্গার নিয়ম

আপনারা যারা মেটলাইফ ডিপিএস করেছেন এবং নিদিষ্ট মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে ডিপিএস ভাঙ্গতে চাচ্ছেন তারা মেটলাইফ অফিসে যোগাযোগ করুন। মেটলাইফ ডিপিএস ভাঙ্গার আগে অবশ্যই তাদের পলিসি গুলো ভালো করে পড়ে নিবেন।

বাংলাদেশে মেটলাইফ ডিপিএস ভাঙ্গার আগে কমপক্ষে দুই বছর প্রিমিয়াম জমা দিতে হবে। ডিপিএস শুরুর ২ বছর সময় অতিক্রম করার পর ডিপিএস ভাঙ্গার আবেদন করতে পারবেন।

এখানে দুইটি প্রেক্ষাপট রয়েছে, ভারতে ৩ বছরের আগে কোনো ডিপিএস ভাঙ্গা যাবে না। কিন্তু, বাংলাদেশে ২ বছর বছর পর ডিপিএস ভাঙ্গা যাবে। তবে, সারেন্ডার ভ্যালু অনুযায়ী অর্থের পরিমাণ কম হবে।

মেটলাইফ ডিপিএস খোলার পর থেকে কমপক্ষে ২ বছর বা একটা নিদিষ্ট সময় পর্যন্ত প্রিমিয়াম জমা দিতে হবে। নিদিষ্ট সময় পর্যন্ত প্রিমিয়াম জমা না দিলে পুরো টাকা বাজেয়াপ্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

মেটলাইফ ডিপিএস পলিসি গুলো পড়ুন তাহলে খুব সহজে Metlife DPS ভাঙ্গার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পারবেন। এছাড়া মেটলাইফ ইন্সুইরেন্স সম্পর্কে যেকোনো তথ্য জানতে কল করুন ১৬৩৪৪ নম্বরে।

শেষ কথা

আজকে আমরা জানলাম মেটলাইফ ডিপিএস ভাঙ্গার নিয়ম বা বাতিল করার নিয়ম সম্পর্কে। এই বিষয় কোনো প্রশ্ন জানার থাকলে নিচের কমেন্টে লিখে জানাবেন এবং লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করবেন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *