ইউরোপের গরিব দেশের তালিকা ২০২৪

অন্যান্য মহাদেশের তুলনায় ইউরোপ অর্থনৈতিক দিক থেকে অনেক সমৃদ্ধিশালী। কিন্তু ইউরোপেও অনেক দেশ রয়েছে যারা আর্থিক ভাবে তেমন সচ্ছল না। জিডিপি বা পার ক্যাপিটা ইনকামের দিক থেকে এই দেশ গুলো অনেক পিছিয়ে। আজকের আর্টিকেলে আমারা জানবো ইউরোপের গরিব দেশের তালিকা সম্পর্কে।

ইউরোপের অন্যান্য দেশের তুলনায় পূর্ব ইউরোপের দেশ গুলো তুলনামূলক ভাবে একেবারে গরিব বলা যায়। একটা সময় পূর্ব ইউরোপের অধিকাংশ দেশ কমিউনিষ্ট শাসনের অধীনে ছিল।

যদিও সময়ের সাথে সাথে এসব দেশ থেকে কমিউনিষ্ট  শাসনের অবসান ঘটলেও পুরোপুরি এসব দেশের অর্থনৈতিক অচল অবস্থা থেকে মুক্তি লাভ করতে পারেনি।

আজকের আর্টিকেলে আমরা জানবো ইউরোপের সবচেয়ে গরিব দেশ বললেও ভুল হবে এমন কয়েকটি দেশের নাম। যেখানে নাগরিকদের মাসিক ইনকাম মাত্র ২৫০ ইউরোর কাছাকাছি।

ইউরোপের গরিব দেশের তালিকা ২০২৪

(১) মলদোভা

ইউরোপের সবচেয়ে গরিব দেশের তালিকায় প্রথমে আছে মলদোভা। মলদোভা পূর্ব ইউরোপের একটি দেশ। যার তিন দিকে ইউক্রেন এবং পশ্চিমে রোমানিয়া অবস্থিত।

মলদোভা সোভিয়াত ইউনিয়নের অংশ ছিলো কিন্ত ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। পার ক্যাপিটা হিসাবে মলদোভা জিডিপি ১ হাজার ৬৭৯ ইউএস ডলার, যা ইউরোপের মধ্যে সর্বনিন্ম।

(২) ইউক্রেন

ইউক্রেন ইউরোপের দ্বিতীয় বৃহত্তর দেশ। ১৯৯১ সালে ইউক্রেন সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে আলাদা হলে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। পার ক্যাপিটা হিসাবে ইউক্রেনের বর্তমান জিডিপির পরিমান ২ হাজার ১৩৩ ইউএস ডলার, যা ইউরোপের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বনিন্ম।

(৩) কসোভাে

কসোভাে ইউরোপের বিতর্কিত অঞ্চল গুলোর মধ্যে একটি। ২০০৮ সালে সার্বিয়া থেকে আলাদা হয়ে পৃথক রাষ্ট্র হিসাবে আত্মপ্রকাশ করে। পার ক্যাপিটা হিসাবে কসোভাের জিডিপির পরিমান ৩ হাজার ৮৯৩ ইউএস ডলার।

(৪) আলবেনিয়া

আলবেনিয়া ইউরোপের মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ একটি দেশ। পার ক্যাপিটা হিসাবে আলবেনিয়ার জিডিপির পরিমান ৪ হাজার ৫৩৭ ইউএস ডলার।

(৫) বসনিয়া

১৯৯২ সালে যুগোস্লাভিয়া ফেডারেশন থেকে আলাদা হয়ে পৃথক রাষ্ট্র হিসাবে বসনিয়া আত্মপ্রকাশ করে। পার ক্যাপিটা হিসাবে বসনিয়ার জিডিপির পরিমান ৫ হাজার ৬৪৭ ইউএস ডলার।

(৬) মেসিডোনিয়া

মেসিডোনিয়া ইউরোপের বলকান উপদ্বীপের দক্ষিণ পূর্বে অবস্থিত ছোট একটি দেশ। দেশটির সরকারি হিসাব অনুযায়ী ১৬ দশমিক ৬ শতাংশ মানুষ বেকারত্ব এবং ২১ দশমিক ৯ ভাগ মানুষ দারিদ্র্য সীমার নিচে বসবাস করে। পার ক্যাপিটা হিসাবে দেশটির জিডিপির পরিমান ৫ হাজার ৪৪২ ইউএস ডলার।

(৭) সার্বিয়া

সার্বিয়া ইউরোপের একটি দরিদ্র দেশ। পার ক্যাপিটা হিসাবে সার্বিয়ার জিডিপির পরিমান ৫ হাজার ৯০০ ইউএস ডলার। সার্বিয়াতে দরিদ্রের মূল কারণ দুর্নীতি ও অপরাধপ্রবণের মাত্রা অনেক বেশি।

(৮) বেলারুশ

বেলারুশ পূর্ব ইউরোপের স্থলবেষ্টিত একটি রাষ্ট্র। ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে আলাদা হয়ে গেলেও রাশিয়ার প্রভাব থেকে এখনো মুক্ত হতে পারেনি। পার ক্যাপিটা হিসাবে বেলারুশের জিডিপির পরিমান ৬ হাজার ২৮৩ ইউএস ডলার।

(৯) বুলগেরিয়া

২০০৭ সালে বুলগেরিয়া ইউরোপীয় ইউনিউনের সদস্য পদ লাভ করে। দেশটির মোট জনসংখ্যার ১০ ভাগ মানুষ দারিদ্র্য সীমার নিচে বসবাস করে। পার ক্যাপিটা হিসাবে বুলগেরিয়ার জিডিপির পরিমান ৮ হাজার ৩১ ইউএস ডলার।

(১০) মন্টিনিগ্রো

আড্রিয়াটিক সাগরের তীরে সুন্দর একটি দেশ মন্টিনিগ্রো। ২০০৬ সালে সার্বিয়া থেকে মন্টিনিগ্রো স্বাধীনতা লাভ করে। পার ক্যাপিটা হিসাবে মন্টিনিগ্রোর জিডিপির পরিমান ৭ হাজার ৬৬৯ ইউএস ডলার।

ইউরোপের সবচেয়ে দরিদ্র দেশ কোনটি

জিডিপির পরিমান হিসাবে ইউরোপের সবচেয়ে দরিদ্র দেশ মলদোভা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইউক্রেন এবং তৃতীয় স্থানে রয়েছে কসোভো।

শেষ কথা

আজকে আমরা জানলাম ইউরোপের গরিব দেশের তালিকা সম্পর্কে। এই সম্পর্কে কোনো প্রশ্ন জানার থাকলে কমেন্ট বক্সে লিখে জানাবেন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *