ইস্তাম্বুল কোন দেশের রাজধানী

আপনারা অনেকে জানতে চাচ্ছেন ইস্তাম্বুল কোন দেশের রাজধানী এবং ইস্তাম্বুল কোন দুটি মহাদেশে অবস্থিত।

ইস্তাম্বুল তুরস্কের উত্তর পশ্চিমে অবস্থিত একটি বৃহত্তর শহর, প্রধান সমুদ্রবন্দর, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও ঐতিহাসিক কেন্দ্র। প্রচীনকালে এই শহরটি বাইজেন্টিয়াম ও কনস্টান্টিনোপল নামে পরিচিত ছিল।

এই শহরটি ইউরোপ ও এশিয়া মহাদেশকে পৃথক করেছে এবং কৃষ্ণ সাগর ও মার্মারা সাগরকে সংযুক্ত করেছে। তুরস্কের মোট জনসংখ্যা ১৯ মানুষ ইস্তাম্বুল শহরে বসবাস করে। 

ইস্তাম্বুল হলো ইউরোপের সবচেয়ে জনবহুল ইউরোপীয় শহর এবং পৃথিবীর ১৫তম বৃহত্তর একটি শহর। এখানে প্রায় ১ কোটি ৫০ লাখ মানুষ বসবাস করে।

ইস্তাম্বুল কোন দেশের রাজধানী

পূর্বে ইস্তাম্বুল তুরস্কের রাজধানী ছিলো। ১৪৫৩ থেকে ১৯২৩ সাল পর্যন্ত ইস্তাম্বুল তুরস্কের রাজধানী ছিল। বর্তমানে তুরস্কের রাজধানীর নাম আঙ্কারা।

তুরস্কের রাজধানীকে আঙ্কারাতে সরিয়ে নেওয়া হয়। ১৯৩০ সালে তুরস্ক স্বাধীনতার ৭ বছর পর সরকারিভাবে শহরটির নাম ইস্তাম্বুল স্থির করা হয়।

ইস্তাম্বুল কোন দুটি মহাদেশে অবস্থিত

ইস্তাম্বুল এশিয়া ও ইউরোপ দুটি মহাদেশে অবস্থিত একটি বৃহত্তর শহর। ইস্তাম্বুল শহরটি ইউরোপ ও এশিয়া মহাদেশকে পৃথকভাবে এবং কৃষ্ণ সাগর ও মার্মারা সাগরকে সংযুক্তকারী সরু বসফরাস প্রণালি পূর্ব ও পশ্চিম অংশ জুড়ে অবস্থিত।

ইস্তাম্বুল কোথায় অবস্থিত

ইস্তাম্বুল তুরস্কে অবস্থিত। এটি তুরস্কের একটি বৃহত্তর শহর। ১৪৫৩ থেকে ১৯২৩ সাল পর্যন্ত ইস্তাম্বুল তুরস্কের রাজধানী ছিল। এশিয়া ও ইউরোপ দুইটি  মহাদেশে ইস্তাম্বুল শহরটি অবস্থিত এবং মিলনক্ষেত্র নামে পরিচিত।

ইস্তাম্বুল কেন বিখ্যাত

ইস্তাম্বুল তুরস্কের একটি বৃহত্তর শহর এবং প্রধানতম সমুদ্রবন্দর। ইস্তাম্বুলে অনেক বিখ্যাত স্থাপনা রয়েছে। এগুলোর মধ্যে বসফরাস সেতু, আয়া সোফিয়া, মেইডেনস টাওয়ার, ওর্তাকয় মসজিদ, লেভেন্ট ব্যবসায়িক জেলাই, গালাতা বুরুজ, ইস্তিকলাল অ্যাভিনিউ অন্যতম।

শেষ কথা

আজকে আমরা জানলাম ইস্তাম্বুল কোন দেশের রাজধানী সহ আরো গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সম্পর্কে। এই বিষয় কোনো প্রশ্ন জানার থাকলে নিচের কমেন্টে লিখে জানাবেন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *